সোমবার, ২২ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৮ জানুয়ারী, ২০১৯, ০৭:৪৭:২৫

পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে এক সাথে কাজ করার অঙ্গিকার নিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন একজন আরেকজনকে

পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে এক সাথে কাজ করার অঙ্গিকার নিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন একজন আরেকজনকে

রাঙ্গামাটিঃ-পার্বত্য অঞ্চল থেকে দ্বিতীয় বারের মতো পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের পূর্ণমন্ত্রী পাওয়া পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং এমপিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন পাহাড়ের অবিসংবাদিত নেতা ও রাঙ্গামাটি সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার ও খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।
সোমবার (৭ জানুয়ারী) বীর বাহাদুরের রাজনৈতিক গুরু হয়ে শীর্ষের বাড়ীতে ফুল নিয়ে গিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে এতটুকুও দেরী করেনি পাহাড়ের অবিসংবাদিত নেতা দীপংকর তালুকদার।
তিন পার্বত্য জেলায় ১৯৯৬ সালের তিনটি আসনে নৌকার বিজয় হওয়ায় কল্পরঞ্জন চাকমাকে প্রথম পার্বত্য মন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছিলেন শেখ হাসিনা। ২০১৮ সালে এসে আবারো পাহাড়ের নৌকার বিজয়ে দ্বিতীয় বারের মতো বান্দরবান জেলার বীর বাহাদুরকে পার্বত্যমন্ত্রী দিতে পিছপা হয়নি শেখ হাসিনা। সেই আনন্দে পাহাড়ের মানুষ আজ একাকার হয়ে আছে। পার্বত্য এই তিন জেলায় উন্নয়নের শিখরে পৌছে দিতে দীর্ঘদিন পর পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী থেকে পার্বত্যমন্ত্রী পাওয়া খুশী সকলেই।
শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেন, পার্বত্য মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে আজ আমরা পার্বত্য জেলার তিনটি আসন শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়েছি। আমাদের বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা যাকে যোগ্য মনে করেছে তাকেই দায়িত্ব অর্পণ করেছে। আমরা সকলেই মিলে পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে কাজ করবো।
এই বীর বাহাদুর পার্বত্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিতে ছুটে গিয়ে দীপংকর তালুকদার বলেন, পাহাড়ের উন্নয়নে আমরা সকলেই এক হয়ে কাজ করবো। তিনজনই শেখ হাসিনার আস্থার ভাজন, নেত্রী বীরের হাতে দায়িত্ব দিয়েছে এই আমি মনে করি একজন যোগ্য নেতার হাতেই দায়িত্ব দিয়েছে। যাকে আমি রাজনৈতিক মঞ্চে নিয়ে এসেছি আমাদের নেত্রী আজ তাকে একটি বড়ো দায়িত্ব দিয়েছে। এতে আমার চাইতে বেশি খুশি আর কে হতে পারে। আমরা এক সাথে থেকে পার্বত্য মানুষের উন্নয়নে কাজ করবো।
পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং বলেন, আমি মনে করি পার্বত্য অঞ্চলের দায়িত্ব আমাদের তিন জনের। এই অঞ্চলের উন্নয়নে আমরা তিনজন এক সাথে মিলে মিশে কাজ করবো। আমার রাজনৈতিক গুরু আমাদের দাদা কাজ থেকে আমি অনেক কাজ শিখেছি। তিনি পাশে আছেন বলেই আমি আজ এতো দুর এগুতে পেরেছি। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আমাদের জননেত্রী আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে ঠিকই কিন্তু এই দায়িত্ব একা পালন করতে পারবো না। এই দায়িত্ব পালন করতে আমার দুজন বড় ভাইকে আমার পাশে সব সময় থাকতে হবে। তিনি বলেন, আমরা তিনজনই মিলে পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নে পাহাড়ের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করতে কাজ করবো।

এই বিভাগের আরও খবর

  কাপ্তাইয়ে দুর্গত জনগণের মাঝে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের ত্রাণ বিতরণ

  কাপ্তাই লেকে রুলকার্ভের চেয়ে ২০ ফুট পানি বেশিঃ ১৬টি স্পিল দিয়ে দেড় ফুট হারে পানি ছাড়া হচ্ছে

  লংগদুতে তিনদিন ব্যাপী ফলদ মেলা উদ্বোধন

  পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে ১৬০ জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ফলজ চারা ও সবজি বীজ বিতরণ

  বিলাইছড়ি ফারুয়া বাজার স্থানান্তরের বিষয়ে বন বিভাগের সাথে আলোচনা করা হবে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  রাঙ্গামাটিতে ৭৩ বৌদ্ধ বিহারসহ চিকিৎসা সহায়তার অনুদান প্রদান

  পরিষদের হস্তান্তরিত বিভাগের সকল কর্মকর্তাদের জনকল্যাণে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  জুরাছড়িতে বিদ্যুৎ এর দাবীতে বিক্ষোভ ও সমাবেশঃ বিদ্যুৎ বিল বর্জন ও রবিবার বৃহত্তর কর্মসূচী ঘোষণা

  রাঙ্গামাটিতে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা ও মাছের পোনা অবমুক্তকরণ

  বন্যা পরবর্তী পরিস্থিতিঃ বাঘাইছড়িতে সড়ক পথ ভাঙ্গন, মৎস্য ও কৃষিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

  বরকলে বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শণে সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, খাদ্যশষ্য ও আর্থিক সহায়তা প্রদান

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে এখন টাকা থাকলে সব রকম অন্যায় করে পার পাওয়া যায়। আপনি কি তা ঠিক মনে করেন?