রবিবার, ২১ এপ্রিল ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮, ০৪:০০:৩৩

নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে যাতে কোন দল ও মতের প্রভাব না পড়ে সে বিষয়ে সতর্ক থাকুন-সিইসি

নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে যাতে কোন দল ও মতের প্রভাব না পড়ে সে বিষয়ে সতর্ক থাকুন-সিইসি

রাঙ্গামাটিঃ-নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে কোন দল ও মত কিংবা ব্যাক্তি বিশেষ পছন্দের কোন প্রভাব যাতে না পড়ে সে দিকে সতর্ক থাকতে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে,এম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, পাহাড়ে নির্বাচনের বিষয়ে কমিশন প্রত্যেকটা কেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে। তিন পার্বত্য এলাকার অবস্থানকে কেন্দ্র করে স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতার লক্ষে আমরা একত্রিত হয়েছি। তিনি ভোটারদের ভোট প্রদানের ক্ষেত্রেও যাতে কোন অন্যান্য প্রভাব পড়ে না পরে সে দিকেও নিশ্চিত করারও নির্দেশ দেন।
তিনি মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) রাঙ্গামাটি ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর ইনিষ্টিটিউটে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে তিন পার্বত্য জেলার আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় এ নির্দেশ দেন।
সিইসি কে এম নুরুল হুদা আরো বলেন, দেশে নির্বাচনের সুস্থ পরিবেশ বিরাজ করছে। লেভেল প্লেইন ফিল্ড হয়েছে বলে সকলেই প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে। আর প্রচার প্রচারণা চালাতে গিয়ে কেউ তো বাধা প্রদান করছে কোন প্রার্থীকে। তিনি বলেন, দুই একটি বিছিন্ন ঘটনা ঘটলেও তা আবার ঠিক হয়ে যাচ্ছে। নির্বাচনের এবার সর্বাধিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
তিনি বলেন, নির্বাচনে যারা দায়িত্ব থাকবেন তারা নিরপেক্ষতা থাকবে হবে। যারা রাজনীতি করেন যারা ভোটার তারা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে কি ভাবে ভোট দেবেন তা নিশ্চিয়তা প্রদান সকলের দায়িত্ব। আমরা এখানে যারা দায়িত্বে থাকবো, কর্মরত থাকবো, তাদের কোন দল, মত অথবা ব্যক্তি বিশেষের পছন্দের কোন রকমের প্রভাব যেন না পরে তার অত্যন্ত সর্তকর্তার সাথে লক্ষ্য রাখতে হবে।
তিনি বলেন, পার্বত্য এলাকায় ভিন্ন ভাবে না হয়ে সমতলের মতো এখানে সুন্দর নির্বাচন হবে এবং সেই ক্ষেত্রে যারা এখানে প্রশাসনের সর্বস্তরে জড়িত আছেন তাদের প্রয়োজন হবে। তার বাইরে যারা রাজনীতিবিদ আছেন, যারা সমাজের সচেতন মহল আছেন, যারা ভোটার আছেন, জনসাধারণ আছেন তারাও প্রত্যেকের তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে দৃঢ় থাকবেন আপনার কারের যেন অন্যায় ভাবে প্রভাবিত হবেন না। নিজেদের ভোটের অধিকার নিজেরা নিশ্চিত করবেন। তাই জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনাদের সকলের সহযোগিতায় ভোটার, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রার্থী, প্রার্থীদের সমর্থক এবং তাদের সাথে প্রশাসনের অবকাঠামো, প্রশাসনের যন্ত্র, সেনাবাহিনী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ, বিজিবি এদের সকলের সহযোগিতায় আগামী ৩০ডিসেম্বর যে জাতীয় সংসদ নির্বাচন যে নির্বাচনটি জাতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যে নির্বাচনের মাধ্যমে একটা জাতির সরকার পরিবর্তন হবে। নতুন একটি সংসদ ও সংসদের দায়িত্বভার গ্রহন করবে সেই নির্বাচনটি আপনাদের সকলের সহযোগিতায় ও অংশগ্রহনের সুন্দর হবে সার্থক হবে, সার্থক হবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন সিইসি।
সভায় নির্বাচন কমিশনার অবশরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাৎ হোসেন, নির্বাচন কমিশনের সচিব  মোঃ হেলাল উদ্দিন আহমেদ, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নান, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি গোলাম ফারুক, চট্টগ্রাম ২৪ পদাতিক ডিবিশনের চৌধুরী মোঃ আজিজুল হক হাজারী।
আইন শৃঙ্খলা সভায় তিন পার্বত্য জেলার, তিন জেলা প্রশাসক, তিন পার্বত্য জেলার রিজিয়ন কমান্ডার, তিন পার্বত্য জেলার বিজিবি কমান্ডার, তিন জেলার পুলিশ সুপার, সহকারী নির্বাচন রিটানিং কর্মকর্তা সহ নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুল রউফের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালনের দাবি

  নুসরাত জাহান হত্যার ‘পরিকল্পনাকারী’ রাঙ্গামাটি থেকে আটক

  কৃষকলীগ হচ্ছে বাংলার মেহনতি মানুষের সংগঠন

  রাঙ্গামাটিতে পুলিশ সদস্যর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  পার্বত্যাঞ্চলের উন্নয়নে পরিকল্পিত পরিকল্পনা গ্রহন করতে হবে-ড.সাইফুল ইসলাম দিলদার

  ভারতে দাদুর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো রুপালি চাকমা

  তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন দাখিলঃ বাঘাইছড়িতে আট খুনের হামলার জন্য জেএসএস প্রার্থীকে দায়ী

  দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত বিলাইছড়ি আ'লীগ সভাপতি সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যার আত্মার শান্তি কামনায় ধর্মীয় দানানুষ্ঠান

  দেশের সার্বিক উন্নয়নে সততা, ও নিষ্ঠার সঙ্গে আমাদের সকলকে দায়িত্ব পালন করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  যে কোনো মূল্যে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে নিয়ে আসতে হবে

  মুজিব নগর সরকার গঠিত না হলে সঠিকভাবে স্বাধীনতা যুদ্ধ পরিচালিত হতোনা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

লন্ডনে থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিএনপির পুনর্গঠনের কাজ শুরু করেছেন জানিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, অল্প সময়ের মধ্যেই বিএনপি আবার উঠে দাঁড়াবে। আপনি কি তা মনে করেন?