রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ০৫:১৩:০৩

ইউপিডিএফকে ভূল স্বীকার করতে ৩দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে রাঙ্গামাটিতে কর্মরত সাংবাদিকদের মানববন্ধন

ইউপিডিএফকে ভূল স্বীকার করতে ৩দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে রাঙ্গামাটিতে কর্মরত সাংবাদিকদের মানববন্ধন

রাঙ্গামাটিঃ-এশিয়ান টিভি রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি মোঃ আলমগীর মানিককে প্রাণনাশের হুমকির দেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে রাঙ্গামাটি কর্মরত সাংবাদিকরা। এসময় আগামী তিনদিনের মধ্যে হুমকি দাতা কুনেন্টু চাকমা ও তার সংগঠন ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে ভূল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান।
বুধবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে রাঙ্গামাটিতে কর্মরত বিভিন্ন টেলিভিশন ও জাতীয় দৈনিকের প্রতিনিধিরা অংশ নেয়।
মাবববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক রাঙামাটি পত্রিকার সম্পাদক আনোয়ার আল হক, সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি ও বাংলা ভিশন প্রতিনিধি নন্দন দেবনাথ, সাপ্তাহিক পাহাড়ের সময় পত্রিকার সম্পাদক মিল্টন বড়ুয়া, রাঙ্গামাটি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এসএ টিভির স্টাফ রিপোর্টার মোঃ সোলায়মান, সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক ও ইন্ডিপেনডেন্ট টিভি’র প্রতিনিধি হিমেল চাকমা, রাঙ্গামাটি জার্নালিষ্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি নিউ এইজ পত্রিকার প্রতিনিধি সাংবাদিক শান্তিময় চাকমা, রাঙ্গামাটি জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি একাত্তর টিভি’র প্রতিনিধি উচিংছা রাখাইন কায়েস।
মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দারা বলেন, আগামী তিনদিনের মধ্যে হুমকি দাতা কুনেন্টু চাকমা ও তার সংগঠন ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে ভূল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান এবং পার্বত্য চুক্তি বিরোধী সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফ নামক সংগঠনটির পাঠানো কোনো ধরনের প্রেস রিলিজ, সাংগঠনিক খবর না ছাপানোসহ প্রচার না করার ঘোষনাও দেন।
নেতৃবৃন্দরা আরো বলেন, এশিয়ান টেলিভিশনসহ জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সুনামের সহিত কাজ করা রাঙ্গামাটির সাংবাদিক আলমগীর মানিককে হুমকি দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের সন্ত্রাসীরা তাদের অপকর্ম ঢেকে রাখার অপচেষ্ঠা চালানোর চেষ্ঠা করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, এর আগেও রাঙ্গামাটিসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সাংবাদিকদের হত্যা, হুমকি-ধামকি মামলা-হামলা করেও সাংবাদিকদের কলমকে স্তব্ধ করতে পারেনি কুচক্রি মহল। তাই পাহাড়ের অস্ত্রধারীরাও তাদের অস্ত্রের ক্ষমতা দেখিয়ে পার্বত্যাঞ্চলের সাংবাদিকদের কলমকে থামিয়ে দেওয়ার চেষ্ঠা করছে। এমতাবস্থায় অস্ত্রের সাথে কলম দিয়েই যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাঙ্গামাটির গণমাধ্যমকর্মীরা। তারই আলোকে আগামী তিনদিনের মধ্যে ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে রাঙ্গামাটির সাংবাদিক সংগঠনগুলোর কাছে হুমকি দেওয়ার বিষয়ে ভূল স্বীকার করে বিবৃতি প্রদান করা না হলে আগামী ইউপিডিএফ এর কোনো ধরনের প্রেস রিলিজ, বিবৃতিসহ যেকোনো ধরনের সাংগঠনিক খবর প্রচার থেকে বিরত থাকবে রাঙ্গামাটির সাংবাদিকরা।
মানববন্ধন শেষে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দসহ সকল সাংবাদিকরা রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসকের সাথে সাক্ষাত করে তাকে বিষয়টি অবহিত করে আলমগীর মানিককে হুমকি দাতাকে আইনের আওতায় আনাসহ রাঙ্গামাটির সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে উদ্যোগ নেওয়ার আহবান জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ। এসময় জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বিষয়টি অবহিত হয়েছেন জানিয়ে এই ব্যাপারে পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট্যদের সাথে যোগাযোগ করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দকে।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ইউএনবি’র প্রতিনিধি অলি আহাম্মেদ, কোষাধ্যক্ষ এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজ প্রতিনিধি পুলক চক্রবর্তী, দৈনিক প্রথম আলো’র  আলোকচিত্রি সুপ্রিয় চাকমা, রাঙ্গামাটি রিপোর্টাস ইউনিটি’র সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক সুশীল প্রশাদ চাকমা, রাঙ্গামাটি সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও গাজী টিভি প্রতিনিধি মিল্টন বাহাদুর, একুশে টিভি ও দৈনিক সমকাল এর প্রতিনিধি সত্রং চাকমা, রাঙ্গামাটি জার্নালিষ্ট নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙ্গামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির কোষাধ্যক্ষ ও দৈনিক পূর্বদেশ পত্রিকার প্রতিনিধি মোঃ কামাল উদ্দিন, রাঙ্গামাটি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দি এশিয়ান এইজ প্রতিনিধি নাজিম উদ্দিন, দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান জুয়েল, দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার প্রতিনিধি সাধন মনি চাকমা, সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক ও দি বাংলাদেশ টুডে পত্রিকার প্রতিনিধি মোঃ শফিকুর রহমান, দৈনিক গিরিদর্পন পত্রিকার প্রতিবেদক শিশির দাশ বাবলা, সিএইচটি টুডে’র প্রতিবেদক মোঃ শাহ আলম, পাহাড়ের সময় পত্রিকার বার্তা সম্পাদক নুরুল আমিন মানিক, দৈনিক রাঙ্গামাটির প্রতিনিধি সৌরভ দে, সিএইচটি টাইমস টোয়েন্টিফোর এর প্রতিবেদক শহিদুল ইসলাম হৃদয়, গোলাম মোস্তফা, সিএইচটি লাইভ টিভির প্রতিনিধি মনু মারমাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা উক্ত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে অংশ নেন। মানববন্ধন পরিচালনা করেছেন রাঙ্গামাটি সাংবাদিক ফোরামের সহ-সাধারণ সম্পাদক চ্যানেল আই রাঙ্গামাটির প্রতিনিধি মনসুর আহাম্মেদ।
উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, গত ১৮ই নভেম্বর আলমগীর মানিকের মুঠোফোনে ইউপিডিএফ নেতা কুনেন্টু চাকমা হুমকি দিয়ে আলমগীর মানিককে ইউপিডিএফ এর বিরুদ্ধে কোনো ধরনের নিউজ না করতে নিষেধ করে অন্যথায় প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেন। এই ঘটনার দিনই কোতয়ালী থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন আলমগীর মানিক। এদিকে একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রসহ আঞ্চলিক দলগুলো কয়েকজন নেতাও এই নাম্বারটি ইউপিডিএফ নেতা কুনেন্টু চাকমার বলে নিশ্চিত করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটির কর্মরত সাংবাদিকদের পাশে নিয়ে পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নে কাজ করে যাবো-দীপংকর তালুকদার এমপি

  এই হ্রদে মৎস্য উৎপাদনের পাশাপাশি দেশ বিদেশে রপ্তানি করে মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব-বৃষ কেতু চাকমা

  রাঙ্গামাটি আনসার-ভিডিপি’র কর্মকর্তা প্রয়াত দীপক বাহাদুরের সহধর্মীনি সানুমায়া মানজি’র পরলোক গমন

  রাঙ্গামাটি ব্লাড ব্যাংক এই সংগঠনের উদ্যোক্তা ও কর্মীরা এখন মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত-দীপংকর তালুকদার এমপি

  শিক্ষা কার্যক্রম পরিদর্শন ও শিক্ষকের ভূমিকায় জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশীদ!

  সমাজের জন্য আর কিছুই করা হলো না জুরাছড়ি সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য কৃষ্ণা চাকমার

  রাঙ্গামাটির সাজেকে ভ্রমণে এসে ঢাকার শিক্ষা বোর্ডের সহকারী পরিচালকের মৃত্যু

  রাঙ্গামাটির পর্যটন শিল্পের বিকাশে কেউ এগিয়ে আসলে তাকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে-দীপংকর তালুকদার এমপি

  রাঙ্গামাটিতে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা

  শিক্ষা অর্জনের পাশাপাশি নিজেকে সৎ ও চরিত্রবান হিসেবে গড়ে তুলতে হবে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  রাঙ্গামাটিতে বিশ্ব বেতার দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিদায়ী সরকারের অধিকাংশ মন্ত্রীকে বাদ দিয়ে সরকার গঠন ‘স্বাভাবিক হয়নি’ মন্তব্য করে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘অস্বাভাবিক’ নির্বাচনের পর এই ‘অস্বাভাবিক’ সরকার বেশি দিন টিকবে না। আপনি কি তা মনে করেন?