শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১২ মে, ২০১৮, ০৯:১০:০৭

পাহাড়ে গুলি করে মানুষ মেরে কখনো পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন সম্ভব নয় -বীর বাহাদুর এমপি

পাহাড়ে গুলি করে মানুষ মেরে কখনো পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন সম্ভব নয় -বীর বাহাদুর এমপি

রাঙ্গামাটিঃ-পাহাড়ে গুলি করে মানুষ মেরে কখনো পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে পার্বত্য চুক্তির যে কতগুলো ধারা এখনো অবাস্তবায়ন রয়েছে সেগুলো বাস্তবায়নের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। অস্ত্রের ঝনঝণানি মাধ্যমে ও চাঁদা আদায় করে কখনো শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়। তাই পার্বত্য চুক্তি বিষয়ে সবাইকে সচেতন হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে।
শনিবার (১২ মে) সকালে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিতে ও বড়খোলা পাড়ায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড রাঙ্গামাটির বাস্তবায়নে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কালে তিনি এসব কথা বলেন।
সকালে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিতে ও বড়খোলা পাড়ায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড রাঙ্গামাটির বাস্তবায়নে ২ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বাঙ্গালহালিয়া কলেজের একাডেমিক ভবন, ছাত্রাবাস ও সীমানা প্রাচীরের ভিত্তি প্রস্তর ও ১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বড়খোলা পাড়ার রাস্তা, বড়খোলা পাড়া বৌদ্ধ বিহারের চেরাং ঘর, পাওয়ার টিলার ও বিহারের টাইলস্ স্থাপনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি, সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার ও পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, এনডিসি।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, রাঙ্গামাটির সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার রনজিত কুমার পালিত, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের যুগ্ন সচিব শাহীনুল ইসলাম, রাজস্থলী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইকবাল, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড রাঙ্গামাটির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মুজিবুল আলম সহ প্রমূখ।
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি আরো বলেন, পাহাড়ে যেসব উন্নয়ন হয়েছে তা আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে হয়েছে। পার্বত্য এলাকার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা খুবই আন্তরিক। তিনি পাহাড়ের মানুষের কথা চিন্তা করে বলেই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে উন্নয়ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তাই উন্নয়নের ধারাবাহিকা ধরে রাখতে পূণরায় নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেন, পাহাড়ের শান্তি ফিরিয়ে আনতে পাহাড়ের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে। পাহাড়ে যারা অশান্তি সৃষ্টি করছে তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে। কোন অপরাধীকে ছাড় দেওয়া হবে না। অপরাধী যেই হোক না কে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। শনিবার সকালে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিতে ও বড়খোলা পাড়ায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড রাঙ্গামাটির বাস্তবায়নে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন কালে এসব কথা বলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতাল ২৫০শষ্যায় উন্নতি, নতুন ১০তলা ভবনের অনুমোদন

  বঙ্গবন্ধুর খুনীরা যাতে মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে সেই দিকে সবাইকে সজাগ থাকার আহবান

  জাতীয় ফুটবল দলে পার্বত্য অঞ্চলের মহিলা ফুটবলাররা ভালো ভূমিকা রাখছে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  নতুন প্রজন্মকে উজ্জীবিত করতে রাঙ্গামাটি প্রতিটি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে-আকবর হোসেন চৌধুরী

  কাউখালীতে বাঙ্গালী গরু ব্যবসায়ী হত্যাঃ ২৫ হাজার টাকার জন্যই খুন!

  জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে কাঠ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন

  দীর্ঘ ৩৬ বছর ধরে দৈনিক গিরিদর্পণ পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের মুখপাত্র হিসাবে কাজ করেছে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  যথাযোগ্য মর্যাদায় বরকল, জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি, লংগদু ও রাজস্থলীতে জাতীয় শোক দিবস পালন

  শোক র‌্যালী, পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্যে দিয়ে রাঙ্গামাটিতে জাতির জনকের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

  প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন তথা তাদের ক্ষমতায়নে সরকার বদ্ধ পরিকর-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  যোগদানকৃত নতুন রিজিয়ন কমান্ডারের সাথে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সৌজন্য সাক্ষাৎকার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?