শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ০৭ নভেম্বর, ২০১৮, ০৯:১২:০৪

রাঙ্গামাটি ষ্টেডিয়ামে উইনস্টার সমর্থকদের হামলা ক্রীড়া সংস্থার অফিস ও দুটি মোটর সাইকেল ভাংচুর

রাঙ্গামাটি ষ্টেডিয়ামে উইনস্টার সমর্থকদের হামলা ক্রীড়া সংস্থার অফিস ও দুটি মোটর সাইকেল ভাংচুর

রাঙ্গামাটিঃ-রাঙ্গামাটি চিংহ্লা মং মারী ষ্টেডিয়ামে উইনষ্টারের সমথর্কদের রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার অফিস ও দুটি মোটর সাইকেল ভাংচুর করেছে। বুধবার (৭ নভেম্বর) পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের বুধবারের উইন স্টার ও রাইজিং স্টার ক্লাবের খেলা শেষে দর্শকরা এই হামলা চালায়। এই হামলায় রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার অফিসের গ্লাস ভাংচুর, কর্মকর্তাদের উপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং স্টোডিয়ামের পার্কিং এ থাকা দুটি মোটর সাইকেল ভাংচুর করে উত্তেজিত দর্শকরা।
রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তারা জানান, বুধবার খেলা ১-১ গোলে শান্তিপূর্ণ ভাবে শেষ হয়। খেলা কোন উত্তেজনা হয়নি। কোন খারাপ আচারণ হয়নি। খেলা শেষে উশৃঙ্খল দর্শকরা এই হামলা চালায়। তবে কেন তারা এই হামলা চালায় আমাদের বোধগম্য নয়।
এদিকে রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিউল আজম জানান, রাঙ্গামাটির ক্রীড়া অঙ্গনের জন্য এটি একটি বড় লজ্জার বিষয়। দীর্ঘ দিন পর মাঠে খেলা গড়ালেও শান্তিপূর্ণ ভাবে খেলা পরিচালিত হয়ে আসছে। কিন্তু বুধবার এই আচরণ আমাদরেকে ভাবিয়ে তুলেছে। তিনি বলেন, আমরা রাতে বৈঠকে বসে এর বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নিবো। তিনি বলেন, কোন ধরনের যদি দোষ থাকতো তাহলে আমাদের জানানো দরকার ছিলো আমরা ব্যবস্থা নিতাম। তারা কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই আমাদের কর্মকর্তাদের উপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। অফিসের গ্লাস ভাংচুর করে এবং দুটি মোটর সাইকেল ভাংচুর করে।
উইনস্টার ক্লাবের সভাপতি মামুন মিন্টুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, দর্শরাই এখানে ভাংচুর করেছে। এখানে আমাদের দোষ কেন আসছে বুঝতে পারছি না। তিনি বলেন, এখানে দুটি কারণ আমরা চিহ্নিত করতে পেরেছি। খেলা শেষে একজন দর্শক মাঠে প্রবেশ করতে চাইলে জেলা ক্রীড়া সংস্থার এক কর্মকর্তা তাকে কলার ধরে নিয়ে আসে। এছাড়া রাঙ্গামাটি যে রেফারী দিয়ে খেলা চালাচ্ছে তা আমরা কোন ভাবেই সন্তুষ্ট নই। বুধবার খেলা শেষে রেফারী সোহেল দর্শকদেরকে উদ্দেশ্যে করে একটি অঙ্গভঙ্গী দেখায় সেই থেকে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এতে আমাদের কোন দোষ নেই। আমরা মাঠেই ছিলাম। আমাদেরকে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সচিব লালু ডাক দিলে আমরা এসে এই পরিস্থিতি দেখতে পায়।

এই বিভাগের আরও খবর

  প্রত্যন্ত এলাকার মানুষদের পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  রাঙ্গামাটিতে টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্পের জেলা সমন্বয় কমিটির সভা

  বেইন ঘর আর চরকায় সুতা কাটার মাধ্যমে রাঙ্গামাটি রাজবন বিহারে দুইদিনের কঠিন চীবর দান উৎসব শুরু

  জুরাছড়িতে প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তির টাকা বিতরণ

  জুরাছড়ি শুকনাছড়ি বেনুবন বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবর দান

  নিজেকে সচেতন করা গেলে ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণ করা যায়-নিখিল কুমার চাকমা

  শুক্রবার রাঙ্গামাটিতে তিন পার্বত্য জেলার সর্ববৃহৎ জশনে জুলুছ

  একাদশ সংসদ নির্বাচনঃ রাঙ্গামাটিতে ইউপিডিএফ ২টি, ইসলামিক আন্দোলন বাংলাদেশ ১টি ও ওয়াকর্স পার্টি ১টি

  রাঙ্গামাটিতে বিএনপি থেকে দীপেন, মণীষ, শাহ আলম, মামুন ও পনির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ

  চলমান উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে দীপংকর তালুকদারকে নৌকা প্রতিকে জয় যুক্ত করতে হবে

  সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় যার যার ধর্ম পালন করার প্রয়োজন রয়েছে-বৃষ কেতু চাকমা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচন না পেছালেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ভোটে আসত। আপনি কি তা মনে করেন?