বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ০৭ নভেম্বর, ২০১৮, ০৮:২০:১৫

সাংস্কৃতিক চর্চার মাধ্যমে নিজেদের ঐতিহ্যকে উপস্থাপন ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব-বৃষ কেতু চাকমা

সাংস্কৃতিক চর্চার মাধ্যমে নিজেদের ঐতিহ্যকে উপস্থাপন ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব-বৃষ কেতু চাকমা

রাঙ্গামাটিঃ-বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি শহরের হারানো ঐতিহ্যকে পুনরুদ্ধারের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ হাতে নিয়েছে, এরই একটি ‘শিল্পের শহর’ কর্মসূচি। কর্মসূচিটির ভাবনা ও পরিকল্পনায় রয়েছেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ঢাকা মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।
বুধবার (৭নভেম্বর) সকালে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে শহীদ আব্দুল আলী মঞ্চে জেলা শিল্পকলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায় ‘শিল্পের শহর রাঙ্গামাটি’ নামে অনুষ্ঠানটি রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্বোধন করেন।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন রাঙ্গামাটি পাবলিক কলেজের অধ্যক্ষ  মো: তাছাদ্দিক হোসেন কবীর, জেলা রোভার স্কাউটস এর সম্পাদক নুরুল আবছার। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারন সম্পাদক মুজিবুল হক বুলবুল। এ সময় জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার অনুসিনথিয়া, জেরা সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তা রূপনা চাকমা’সহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনী বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, এ জেলায় রয়েছে বিভিন্ন ভাষাভাষি নৃ-গোষ্ঠীদের বসবাস। রয়েছে তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি কৃষ্টি কালচার ঐতিহ্য। তিনি বলেন, তাদের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডগুলো চর্চা করতে সরকার শিল্পকলা ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠা করেছে। তিনি বলেন, এ জেলা একটি পর্যটনখ্যাত জেলা। এখানে আগত পর্যটকদের বিনোদনের খোরাক হিসেবে শিল্পীরা যদি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে তাহলে একদিকে যেমন তাদের সাংস্কৃতিক চর্চা হবে অন্যদিকে নিজেদের ঐতিহ্যকে উপস্থাপন ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব। তিনি বলেন, নৃ-গোষ্ঠীদের রয়েছে ঐতিহ্যবাহি হস্তশিল্পের পোশাক-বাঁশ বেতের জিনিসপত্র রয়েছে নিজস্ব ধরনের পিঠা পুলি। পর্যটকদের কাছে এসব বিক্রি করেও নিজেদের ঐতিহ্য ধরে রাখার পাশাপাশি আর্থিক উপার্জন করা সম্ভব। তিনি এ ধরনের উদ্দ্যেগ গ্রহনে শিল্পী কলাকৈশলীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
পরে অনুষ্ঠানে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা। শেষে  জেলা শিল্পকলা একাডেমিসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  আগামী প্রজন্মকে ডিজিটাল অগ্রযাত্রায় নিয়ে যেতে প্রতিটি স্কুলে কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন জরুরী-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে সকলকে আরো আন্তরিক হতে হবে-সচিব নূরুল আমিন

  ফিরোজা বেগম চিনুকে আবারো সংসদ সদস্য হিসাবে দেখতে চায় পাহাড়ের নারীরা

  পরিষদ চেয়ারম্যানের সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ান হাই কমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  সমাজ ও দেশের উন্নয়ন করতে হলে আদর্শিক ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  কাপ্তাইয়ের কেপিএমে ৩ মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে এমডির অফিস ঘেরাও

  রাঙ্গামাটির আসামবস্তি থেকে জেএসএসের চাঁদা কালেক্টর অস্ত্রসহ আটক

  শেখ হাসিনা সুস্থতা কামনায় রাঙ্গামাটি রাজবন বিহারে ধর্মানুষ্ঠান করলেন এক বৃদ্ধা ও তার পরিবার

  কে হচ্ছেন এবার পাহাড়ের সংরক্ষিত নারী নেত্রী! চিনু-শান্তনা নাকি অন্য কেউ ?

  জীবনের ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং কর্মসূচি খুবই মহতী উদ্যোগ ও সত্যি প্রশংসনীয়-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  বরকলের দূর্গম গ্রামের মানুষের স্বেচ্ছাশ্রমে ১০ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বৈষম্য কমাতে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য পেনশন ব্যবস্থা চালুর পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান। এটা করা হলে বৈষম্য কমবে বলে মনে করেন?