শনিবার, ২০ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ০৬:১৫:২০

পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত নৃ-গোষ্ঠীদের জীবনধারার সাথে তাঁত ও হস্তশিল্পের একটি যোগসূত্র রয়েছে-বৃষ কেতু চাকমা

পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত নৃ-গোষ্ঠীদের জীবনধারার সাথে তাঁত ও হস্তশিল্পের একটি যোগসূত্র রয়েছে-বৃষ কেতু চাকমা

রাঙ্গামাটিঃ-রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ এর সহযোগীতায় ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন পরিষদের আয়োজনে রাঙ্গামাটিতে মাসব্যাপী তাঁত ও হস্তশিল্প মেলা-২০১৮ শুরু হয়েছে।
বুধবার (১০ অক্টোবর) বিকেলে রাঙ্গামাটি কুমার সমিত রায় জিমনেসিয়াম প্রাঙ্গণে আয়োজিত মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। পরে রাঙ্গামাটি প্রতিবন্ধী স্কুল ও পুর্নবাসন কেন্দ্রে এক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।
রাঙ্গামাটি উদ্যোক্তা উন্নয়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক ও বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা আশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক বিপ্লব চাকমা’র সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় মহিলা চেম্বার এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি মহিলা উদ্যোক্তা মনোয়ারা বেগম, রাঙ্গামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, রাঙ্গামাটি রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন পরিষদের সদস্য সচিব ধর্মেশ খীসা বক্তব্য রাখেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, যুগ যুগ ধরে পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত নৃ-গোষ্ঠীদের জীবনধারার সাথে তাঁত ও হস্তশিল্পের একটি যোগসূত্র রয়েছে। দেশ বিদেশের গার্মেন্টস এর ন্যয় পাহাড়ে উৎপাদিত তাঁত ও হস্তশিল্পের জিনিসপত্রের মান আরো বাড়ানো গেলে দেশ বিদেশে এর চাাহিদা আরো বাড়বে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, এই ধরনের মেলা আয়োজনের ফলে এখানকার ছোট বড় উদ্যোক্তারা তাদের নিজস্ব তৈরি জিনিসপত্র বিক্রয় ও প্রদর্শনী করতে পারবে। এর ফলে নতুন নতুন উদ্যোক্তারা আরো উৎসাহিত হবে।  তিনি আক্ষেপ করে বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর অস্তিরতার কারনে দিন দিন পর্যটকরা এখান থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে যার ফলে এখানকার উৎপাদিত হস্তশিল্পের পন্য বিক্রী করতে পারছেনা উদ্যোক্তারা। পাশাপাশি এখানকার পর্যটন শিল্পকে ঢেলে সাজানো গেলে পর্যটকের আগমন ঘঠবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, এ জেলাকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যরে পাশাপাশি শৈল্পিকভাবে সাজাতে ইতিমধ্যে জেলা পরিষদ উদ্যোগ গ্রহন করেছে। এর ফলে দেশী বিদেশী পর্যটকের আগমন ঘঠবে এবং এখানকার তাঁত ও হস্তশিল্পে উৎপাদিত পন্যের চাহিদা বাড়বে। এ মেলা আগামী নভেম্বর ১০ তারিখ পর্যন্ত চলবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  এই দেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ-ফিরোজা বেগম চিনু এমপি

  তপোবন অরণ্য কুটিরে প্রবারণানুষ্ঠান উদযাপন

  কাপ্তাই হ্রদে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হল শারদীয় দুর্গোৎসব

  দুর্গা পুজামন্ডপ পরিদর্শন করলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

  মহা নবমীতে মন্ডপে মন্ডপে হাজারো পূর্ণার্থীঃ কাল প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হচ্ছে দূর্গোৎসব

  জুরাছড়িতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে প্রান্তিক শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

  জনসেবার মন নিয়ে সবাইকে জনগণের পাশে থেকে এ জেলা তথা দেশের উন্নয়ন করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  বরকল সদরের ১৩টি গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ লাইন সংযোগের দাবী

  সকল সম্প্রদায়ের সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রেখে উন্নয়ন করাই হচ্ছে বর্তমান সরকারের লক্ষ্য-বৃষ কেতু চাকমা

  নানিয়ারচরে দূর্বৃত্তদের গুলিতে জেএসএস সংস্কার গ্রুপের শান্ত চাকমা নিহত

  শান্তি রক্ষায় দুস্কৃতিকারীদের প্রতিরোধে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে-মোঃ সৈয়দ রিয়াদ মেহদুর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?