শনিবার, ২৩ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১১ মার্চ, ২০১৮, ০৮:৩৬:৩৭

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে জেলা প্রশাসকের সৌজন্য সাক্ষাৎ

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে জেলা প্রশাসকের সৌজন্য সাক্ষাৎ

রাঙ্গমাটিঃ-রাঙ্গামাটির নবাগত জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ রবিবার (১১ মার্চ ) বিকেলে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা-র সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।
তারা শুভেচ্ছা বিনিময়ের পাশাপাশি এ জেলার উন্নয়ন, সমস্যা-সম্ভাবনাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।
সৌজন্য সাক্ষাৎকালে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ জেলার মানুষের অভিন্ন জীবনযাত্রা, সমাজ-সংস্কৃতি ও রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন। এ জেলা পরিচালনার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা বিনিময় ও পারস্পরিক সহযোগিতার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন চেয়ারম্যান ও নবাগত জেলা প্রশাসক।
এ সময় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ, জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মুছা মাতব্বর, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মনতোষ চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  বলাকা ক্লাবের উদ্যোগে সৌখিন ফুটবল টুর্ণামেন্টঃ মংলা স্মৃতি চ্যাম্পিয়ন, পান্ডিয়া দল রানার্স আপ

  হাজারো মানুষের ভালোবাসা আর ফুলেল শ্রদ্ধায় ডাঃ নিহারেন্দু তালুকদারের দাহক্রিয়া সম্পন্ন

  পাহাড় ধ্বসের ঘটনায় মগবান, বালুখালী ও জীপতলীর ক্ষতিগ্রস্থ ঢেউটিন নগদ অর্থ বিতরণ

  খালেদা জিয়ার নিঃশ্বর্ত মুক্তির না দিলে পার্বত্য রাঙ্গামাটি থেকে বৃহত্তর আন্দোলন

  না ফেরার দেশে চলে গেলেন ডাঃ নিহারেন্দু তালুকদার

  যোগ ব্যায়ামের প্রসারের ফলে শারীরিক ও আত্মিক উন্নয়ন সম্ভব

  মাছ ধরা বন্ধকালীন সময়ে ৪০ কেজি করে চাল দেয়া না হলে হরতালসহ বৃহত্তর কর্মসূচী দেয়ার ঘোষণা

  রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে পাহাড় ধ্বসে ১১জন নিহতদের পরিবারের পাশে ব্র্যাক

  পাহাড়ী ঢলে হ্রদের পানি বৃদ্ধিঃ কাপ্তাই বাঁধের ১৬ স্পিলওয়ে দিয়ে ৩ফুট হারে পানি ছাড়া হচ্ছে

  সাধারণ জনগণের কল্যাণে উন্নয়নমূলক কাজে মনোযোগী হতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  বাঘাইছড়িতে বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এলাকা পরিদর্শন

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?