শনিবার, ২১ এপ্রিল ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৯:২০

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কামিলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা শান্তনা চাকমা মুরগির খামার করে সাফল্য পেয়েছেন। পারিবারিক গৃহস্থালী কাজের পাশাপাশি শান্তনা এই মুরগীর খামার গড়ে তুলেছেন বলে জানা গেছে। তার খামারে শতাধিক দেশী মুরগি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকাল শান্তনা চাকমা নিজ হাতে মুরগীদের খাবার দেন। খাবারের সময় হলে কিছু মুরগী দল বেঁধে খামারের সামনে চলে আসে। আবার কিছু কিছু মুরগি পাহাড়ের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ায় আর পোকা মাকড় খায়। মুরগিদের খাবার দেবার জন্য শান্তনা বিশেষ এক ধরনের ব্যবস্থা করেছেন। একটি মোটা বাঁশকে দুই ফালি করে একটি ফালি শুন্যে ঝলিয়ে রাখেন। পরে ঐ বাঁশের ফালির মধ্যে শান্তনা নিজ হাতে খাবার রাখেন। মুরগির দল বাঁশের ফালির মধ্যে রাখা খাবার খায়।
শান্তনা জানান, তার খামারে বিভিন্ন ধরনের মুরগি রয়েছে। বড় রাতা মুরগি আছে ১২টি। ডিম পাড়া মুরগি আছে ৪০টি। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের মুরগি খামারে রয়েছে। শান্তনা প্রতিদিন খামার থেকে বেশ কিছু দেশী মুরগীর ডিম পান। ঐ ডিম নিজেরা খান। পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশীদেরও দেন। কিছু ডিম বাজারে বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে দেশী মুরগির ডিমের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বাজারে নেবার সাথে সাথে ডিম বিক্র হয়ে যায়। অনেকে ডিমের জন্য আগাম টাকা দিয়ে রেখেছেন। ডিম পাওয়া গেলেই টাকা প্রদানকারীদের আগে ডিম সরবরাহ করেন বলেও তিনি জানান। মুরগী লালন পালনের জন্য শান্তনা চাকমা বাড়ীর আঙ্গীনায় একটি ঘর বানিয়েছেন। মুরগির দল সারাদিন বাহিরে ঘুরে বেড়ায়। আর সন্ধ্যা হলেই ঘরে চলে আসে। শান্তনা বলেন, পাহাড়ী মুরগির প্রতিও অনেকের আগ্রহ আছে। সাংসারিক প্রয়োজনে তিনি প্রায় সময় মুরগি বিক্রি করতে স্থানীয় বাজারে নিয়ে যান। বাজারে নেবার আগেই পথ থেকে অনেকে মুরগি কিনে নিয় যায় বলে শান্তনা জানান। মুরগির খামার করে শান্তনা সাফল্য পেয়েছেন বলেও এই প্রতিনিধিকে জানান। প্রতিনিয়ত মুরগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তনা অনেক খুশি।

এই বিভাগের আরও খবর

  মুক্তির পাওয়ার পর এইচডব্লিএফের দুই নেত্রী রাঙ্গামাটিতে নিজ নিজ বাড়ীতে ফিরেছেন

  ৩৩ দিন পর রাঙ্গামাটিতে থেকে অপহৃত মন্টি ও দয়াসোনা চাকমা খাগড়াছড়িতে মুক্ত

  বীর শ্রেষ্ট মুন্সি আব্দুল রউফের মেধা বৃত্তি সবার মাঝে চেতনা বোধ সৃষ্টির একটি মাইল ফলক-দীপংকর তালুকদার

  কাল বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ’র শাহাদাৎ বার্ষিকী, রাঙ্গামাটিতে নানা আয়োজন

  পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  লংগদুতে বর্ণিল আয়োজনে শেষ হলো বৈসাবী ও বর্ষবরণ

  পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারী লোকজনের জন্য দুইটি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হবে

  রাঙ্গামাটিতে সেনা অভিযানঃ দুটি একে-৪৭, ১টি এসএলআরসহ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার

  মারমাদের সাংগ্রাই পানি খেলার মধ্যে দিয়ে রাঙ্গামাটিতে শেষ হলো বৈসাবি উৎসব

  জাতির জনকের সঠিক সিদ্ধান্তের কারণেই বাংলাদেশ স্বাধীনতার স্বপ্ন লালিত হয়েছিল-দীপংকর তালুকদার

  মারমা সাংস্কৃতির পাশাপাশি অন্যান্য সম্প্রদায়ের সংস্কৃতিকে রক্ষা করতে-উষাতন তালুকদার এমপি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

সাবেক সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ বলেছেন, নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেইং ফিল্ড’ প্লেটে তুলে দেওয়া যায় না; রাজনৈতিক দলগুলো মাঠে নামলে খেলতে খেলতেই সবার জন্য সমান সুযোগ তৈরি হয়। আপনি কি তা মনে করেন?