মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৯:২০

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কামিলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা শান্তনা চাকমা মুরগির খামার করে সাফল্য পেয়েছেন। পারিবারিক গৃহস্থালী কাজের পাশাপাশি শান্তনা এই মুরগীর খামার গড়ে তুলেছেন বলে জানা গেছে। তার খামারে শতাধিক দেশী মুরগি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকাল শান্তনা চাকমা নিজ হাতে মুরগীদের খাবার দেন। খাবারের সময় হলে কিছু মুরগী দল বেঁধে খামারের সামনে চলে আসে। আবার কিছু কিছু মুরগি পাহাড়ের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ায় আর পোকা মাকড় খায়। মুরগিদের খাবার দেবার জন্য শান্তনা বিশেষ এক ধরনের ব্যবস্থা করেছেন। একটি মোটা বাঁশকে দুই ফালি করে একটি ফালি শুন্যে ঝলিয়ে রাখেন। পরে ঐ বাঁশের ফালির মধ্যে শান্তনা নিজ হাতে খাবার রাখেন। মুরগির দল বাঁশের ফালির মধ্যে রাখা খাবার খায়।
শান্তনা জানান, তার খামারে বিভিন্ন ধরনের মুরগি রয়েছে। বড় রাতা মুরগি আছে ১২টি। ডিম পাড়া মুরগি আছে ৪০টি। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের মুরগি খামারে রয়েছে। শান্তনা প্রতিদিন খামার থেকে বেশ কিছু দেশী মুরগীর ডিম পান। ঐ ডিম নিজেরা খান। পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশীদেরও দেন। কিছু ডিম বাজারে বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে দেশী মুরগির ডিমের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বাজারে নেবার সাথে সাথে ডিম বিক্র হয়ে যায়। অনেকে ডিমের জন্য আগাম টাকা দিয়ে রেখেছেন। ডিম পাওয়া গেলেই টাকা প্রদানকারীদের আগে ডিম সরবরাহ করেন বলেও তিনি জানান। মুরগী লালন পালনের জন্য শান্তনা চাকমা বাড়ীর আঙ্গীনায় একটি ঘর বানিয়েছেন। মুরগির দল সারাদিন বাহিরে ঘুরে বেড়ায়। আর সন্ধ্যা হলেই ঘরে চলে আসে। শান্তনা বলেন, পাহাড়ী মুরগির প্রতিও অনেকের আগ্রহ আছে। সাংসারিক প্রয়োজনে তিনি প্রায় সময় মুরগি বিক্রি করতে স্থানীয় বাজারে নিয়ে যান। বাজারে নেবার আগেই পথ থেকে অনেকে মুরগি কিনে নিয় যায় বলে শান্তনা জানান। মুরগির খামার করে শান্তনা সাফল্য পেয়েছেন বলেও এই প্রতিনিধিকে জানান। প্রতিনিয়ত মুরগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তনা অনেক খুশি।

এই বিভাগের আরও খবর

  পার্বত্য অঞ্চলের জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত করতে সরকারের প্রদত্ত সুযোগ সুবিধা জনগণের দৌড় গৌড়ায় পৌঁছে দিতে হবে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  মানুষের ভালোবাসা ও ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক আলহাজ্ব এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ

  নানিয়ারচরে নব্য মুখোশবাহিনী প্রতিরোধ কমিটির ডাকা সড়ক ও নৌ পথ অবরোধ পালিত

  নানিয়ারচর থেকে অপহৃত ১৮ গ্রামবাসীর মধ্যে ১২ জনকে মুক্তি দিয়েছে অপহরণকারীরা

  রাজস্থলীতে শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ টাকা বিতরন

  না ফেরার দেশে চলে গেলেন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য চানমনি তঞ্চঙ্গ্যা

  নানিয়ারচর ১৫ গ্রামবাসীকে উদ্ধারের দাবীতে সড়ক ও নৌ পথ অবরোধ চলছে

  বরকল উপজেলার বরুনাছড়ি স্বাস্থ্য ক্লিনিক জড়াজির্ন, ব্যাহত হচ্ছে স্বাস্থ্যসেবা

  রাঙ্গামাটির কাউখালীতে এক মারমা গৃহবধুকে ধর্ষণ

  কাপ্তাই কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনঃ মির্জা নাজিম সভাপতি ও ফজলু সম্পাদক নির্বাচিত

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?