রবিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৯:২০

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কামিলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা শান্তনা চাকমা মুরগির খামার করে সাফল্য পেয়েছেন। পারিবারিক গৃহস্থালী কাজের পাশাপাশি শান্তনা এই মুরগীর খামার গড়ে তুলেছেন বলে জানা গেছে। তার খামারে শতাধিক দেশী মুরগি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকাল শান্তনা চাকমা নিজ হাতে মুরগীদের খাবার দেন। খাবারের সময় হলে কিছু মুরগী দল বেঁধে খামারের সামনে চলে আসে। আবার কিছু কিছু মুরগি পাহাড়ের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ায় আর পোকা মাকড় খায়। মুরগিদের খাবার দেবার জন্য শান্তনা বিশেষ এক ধরনের ব্যবস্থা করেছেন। একটি মোটা বাঁশকে দুই ফালি করে একটি ফালি শুন্যে ঝলিয়ে রাখেন। পরে ঐ বাঁশের ফালির মধ্যে শান্তনা নিজ হাতে খাবার রাখেন। মুরগির দল বাঁশের ফালির মধ্যে রাখা খাবার খায়।
শান্তনা জানান, তার খামারে বিভিন্ন ধরনের মুরগি রয়েছে। বড় রাতা মুরগি আছে ১২টি। ডিম পাড়া মুরগি আছে ৪০টি। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের মুরগি খামারে রয়েছে। শান্তনা প্রতিদিন খামার থেকে বেশ কিছু দেশী মুরগীর ডিম পান। ঐ ডিম নিজেরা খান। পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশীদেরও দেন। কিছু ডিম বাজারে বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে দেশী মুরগির ডিমের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বাজারে নেবার সাথে সাথে ডিম বিক্র হয়ে যায়। অনেকে ডিমের জন্য আগাম টাকা দিয়ে রেখেছেন। ডিম পাওয়া গেলেই টাকা প্রদানকারীদের আগে ডিম সরবরাহ করেন বলেও তিনি জানান। মুরগী লালন পালনের জন্য শান্তনা চাকমা বাড়ীর আঙ্গীনায় একটি ঘর বানিয়েছেন। মুরগির দল সারাদিন বাহিরে ঘুরে বেড়ায়। আর সন্ধ্যা হলেই ঘরে চলে আসে। শান্তনা বলেন, পাহাড়ী মুরগির প্রতিও অনেকের আগ্রহ আছে। সাংসারিক প্রয়োজনে তিনি প্রায় সময় মুরগি বিক্রি করতে স্থানীয় বাজারে নিয়ে যান। বাজারে নেবার আগেই পথ থেকে অনেকে মুরগি কিনে নিয় যায় বলে শান্তনা জানান। মুরগির খামার করে শান্তনা সাফল্য পেয়েছেন বলেও এই প্রতিনিধিকে জানান। প্রতিনিয়ত মুরগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তনা অনেক খুশি।

এই বিভাগের আরও খবর

  বিলাইছড়ির কুতুবদিয়ায় পানীয় জলের তীব্র সংকট

  কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা দীপেন দেওয়ানের তৃণমূল পর্যায়ে সভা সমাবেশ

  রাঙ্গামাটিতে প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর, আটক-২

  এই দেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ-ফিরোজা বেগম চিনু এমপি

  তপোবন অরণ্য কুটিরে প্রবারণানুষ্ঠান উদযাপন

  কাপ্তাই হ্রদে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হল শারদীয় দুর্গোৎসব

  দুর্গা পুজামন্ডপ পরিদর্শন করলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

  মহা নবমীতে মন্ডপে মন্ডপে হাজারো পূর্ণার্থীঃ কাল প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হচ্ছে দূর্গোৎসব

  জুরাছড়িতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে প্রান্তিক শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

  জনসেবার মন নিয়ে সবাইকে জনগণের পাশে থেকে এ জেলা তথা দেশের উন্নয়ন করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  বরকল সদরের ১৩টি গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ লাইন সংযোগের দাবী

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?