বুধবার, ১৪ নভেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৯:২০

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কামিলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা শান্তনা চাকমা মুরগির খামার করে সাফল্য পেয়েছেন। পারিবারিক গৃহস্থালী কাজের পাশাপাশি শান্তনা এই মুরগীর খামার গড়ে তুলেছেন বলে জানা গেছে। তার খামারে শতাধিক দেশী মুরগি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকাল শান্তনা চাকমা নিজ হাতে মুরগীদের খাবার দেন। খাবারের সময় হলে কিছু মুরগী দল বেঁধে খামারের সামনে চলে আসে। আবার কিছু কিছু মুরগি পাহাড়ের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ায় আর পোকা মাকড় খায়। মুরগিদের খাবার দেবার জন্য শান্তনা বিশেষ এক ধরনের ব্যবস্থা করেছেন। একটি মোটা বাঁশকে দুই ফালি করে একটি ফালি শুন্যে ঝলিয়ে রাখেন। পরে ঐ বাঁশের ফালির মধ্যে শান্তনা নিজ হাতে খাবার রাখেন। মুরগির দল বাঁশের ফালির মধ্যে রাখা খাবার খায়।
শান্তনা জানান, তার খামারে বিভিন্ন ধরনের মুরগি রয়েছে। বড় রাতা মুরগি আছে ১২টি। ডিম পাড়া মুরগি আছে ৪০টি। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের মুরগি খামারে রয়েছে। শান্তনা প্রতিদিন খামার থেকে বেশ কিছু দেশী মুরগীর ডিম পান। ঐ ডিম নিজেরা খান। পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশীদেরও দেন। কিছু ডিম বাজারে বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে দেশী মুরগির ডিমের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বাজারে নেবার সাথে সাথে ডিম বিক্র হয়ে যায়। অনেকে ডিমের জন্য আগাম টাকা দিয়ে রেখেছেন। ডিম পাওয়া গেলেই টাকা প্রদানকারীদের আগে ডিম সরবরাহ করেন বলেও তিনি জানান। মুরগী লালন পালনের জন্য শান্তনা চাকমা বাড়ীর আঙ্গীনায় একটি ঘর বানিয়েছেন। মুরগির দল সারাদিন বাহিরে ঘুরে বেড়ায়। আর সন্ধ্যা হলেই ঘরে চলে আসে। শান্তনা বলেন, পাহাড়ী মুরগির প্রতিও অনেকের আগ্রহ আছে। সাংসারিক প্রয়োজনে তিনি প্রায় সময় মুরগি বিক্রি করতে স্থানীয় বাজারে নিয়ে যান। বাজারে নেবার আগেই পথ থেকে অনেকে মুরগি কিনে নিয় যায় বলে শান্তনা জানান। মুরগির খামার করে শান্তনা সাফল্য পেয়েছেন বলেও এই প্রতিনিধিকে জানান। প্রতিনিয়ত মুরগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তনা অনেক খুশি।

এই বিভাগের আরও খবর

  একাদশ সংসদ নির্বাচনঃ রাঙ্গামাটিতে ইউপিডিএফ ২টি, ইসলামিক আন্দোলন বাংলাদেশ ১টি ও ওয়াকর্স পার্টি ১টি

  রাঙ্গামাটিতে বিএনপি থেকে দীপেন, মণীষ, শাহ আলম, মামুন ও পনির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ

  চলমান উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে দীপংকর তালুকদারকে নৌকা প্রতিকে জয় যুক্ত করতে হবে

  সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় যার যার ধর্ম পালন করার প্রয়োজন রয়েছে-বৃষ কেতু চাকমা

  পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পটি হাতে নিয়েছে-বৃষ কেতু চাকমা

  বরকল আওয়ামীলীগের ৬৭ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন

  রাঙ্গামাটিতে ভুয়া সাংবাদিক আটক

  এই সরকারের আমলেই পার্বত্যাঞ্চলের সকল সেক্টরের উন্নয়ন হয়েছে-বৃষ কেতু চাকম

  রাঙ্গামাটির তবলছড়িতে ভ্রাম্যমান আদালতঃ হিলফুল বেকারীকে ৬ হাজার জরিমানা

  রাঙ্গামাটি সড়ক পরিবহন ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিত কমিটির শপথ

  কুতুকছড়িতে যৌথ বাহিনীর অভিযানঃ চাঁদার রশিদ, টাকা ও মোবাইলসহ ২ জন আটক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের পর সমালোচনার জবাবে কামাল হোসেন বলেছেন, দণ্ডিত তারেক রহমান দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হলেও দলের সঙ্গে জোট গড়ার মধ্য দিয়ে তার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক স্থাপন হয়নি। আপনি কি তার যুক্তিতে সন্তুষ্ট?