বুধবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৫:৪১:২৭

আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে কাপ্তাই ছিল অচল

আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে কাপ্তাই ছিল অচল

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে সমগ্র কাপ্তাই উপজেলা অচল হয়ে পড়ে। সকাল ৬টা থেকে যুবলীগের নেতা কর্মীরা কাপ্তাই সড়কের বিভিন্ন স্থানে বসে পিকেটিং করেন। যুবলীগ ছাড়াও আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ এবং মহিলা আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরাও পিকেটিংয়ে অংশ নেন। হরতালের কারণে কাপ্তাই সড়কে বাস, ট্রাক, প্রাইভেট গাড়ি, অটোরিক্সা এমনকি মোটর সাইকেল পর্যন্ত রাস্তায় চলাচল করতে পারেনি। কাপ্তাই উপজেলা সদর বরইছড়ি, শীলছড়ি, কাপ্তাই লগগেইটসহ বিভিন্ন স্থানে নেতা কর্মীদের পিকেটিং করতে দেখা গেছে। কোথাও কোথাও রাস্তার উপর টায়ার জ্বেলে পিকেটিং করা হয়। কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক থোয়াইচিং মারমা, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক তানভীর আহমেদ, ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক এ আর লিমন, আওয়ামী লীগ নেতা দিপ্তী তালুকদার, অমলেশ, মাহবুবসহ বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মীকে রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে থেকে হরতালের সমর্থনে পিকেটিং করতে দেখা গেছে। যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় সাধারন লোকজনকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  কেন্দ্রীয় নেতা মাহাবুবুর রহমান শামিমকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে রাঙ্গামাটি জেলা বিএনপি’র প্রতিবাদ সমাবেশ

  কাপ্তাই-রাঙ্গামাটি সড়কে সওজের বুলডোজার উল্টে চালক আহত

  রাঙ্গামাটিতে পালিত হলো জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা

  লংগদুতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা

  পার্বত্যঞ্চলে আলাদা রাষ্ট্র চিন্তাকারীদের স্বপ্ন কোন দিন পূরণ হবে না-জিওসি

  রাঙ্গামাটিতে ট্রাক ভর্তি অবৈধ কাঠসহ দুইজনকে আটক করেছে যৌথবাহিনী

  বরকলের ১৮টি বৌদ্ধ বিহারে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের আর্থিক সহায়তা প্রদান

  রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজে মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ করা প্রয়োজন-বিধান চন্দ্র বড়ুয়া

  রাঙ্গামাটির ভেদভেদীতে ভ্রাম্যমান আদালতঃ বনলতা বেকারীকে ৫ হাজার ও ১৫ দিনের কারাদন্ড

  রাজবন বিহারে ৪৫তম কঠিন চীবর দান উদযাপনে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের প্রস্তুতিমূলক সভা

  সরকার ক্ষমতায় থেকে আগামী নির্বাচনের নীল নকশা তৈরী করতে যাচ্ছে

  0

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?