বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৭, ০৭:৩০:৪৮

বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে সেইপের উদ্যোগে কাপ্তাইয়ে কর্মশালা

বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে সেইপের উদ্যোগে কাপ্তাইয়ে কর্মশালা

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রনালয়ের স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেইপ) এর উদ্যোগে বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষে সোমবার (১৩ নভেম্বর) কাপ্তাইয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তনচংগ্যা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর নাহার, কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল লতিফ এবং চিৎমরম ইউপি চেয়ারম্যান খাইস্যা মং মারমা। রাঙ্গামাটি জেলার ১০ উপজেলাসহ পার্বত্য তিন জেলার প্রতিটি উপজেলায় এরকম কর্মশালার আয়োজন করা হবে বলে আয়োজক সুত্রে জানা গেছে। মনিটরিং অফিসার একেএম মঞ্জুরুল হকের সঞ্চালনায় আয়োজিত কর্মশালায় সহযোগিতা দেন সোস্যাল মার্কেটিং অফিসার মোঃ খোরশেদ আলম।
কর্মশালায় সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সংবাদ কর্মী, নারী নেত্রী, মসজিদের ইমামসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোকজন অংশ নেন। কর্মশালায় বলা হয় সম্পূর্ণ সরকারি খরচে বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ প্রাপ্তদের কমপক্ষে ৭০ ভাগ চাকরি পাবার নিশ্চয়তা রয়েছে। প্রশিক্ষণ প্রাপ্তরা নগন্য খরচে বিদেশেও যেতে পারবে। ঘরে বসে কমপক্ষে ৫০ হাজার টাকা আয় রোজগার করতে পারবে। সুবিধা বঞ্চিত সকল শ্রেণীর মানুষ বিশেষ করে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী, চর ও হাওরসহ দুর্গম অঞ্চলের অধিবাসী, বিলুপ্ত ছিট মহলের বাসিন্দা, প্রতিবন্ধীরা প্রশিক্ষণের আওতায় আসবে বলেও কর্মশালায় জানানো হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন বলেন, সরকারের এই উদ্যোগ অত্যন্ত জরুরী ও সময় উপযোগী হয়েছে। তিনি বলেন দক্ষতা না থাকায় অনেক কর্মী বিদেশে গিয়ে উন্নতি করতে পারেনা। দেশেও কোন কাজ করতে পারেনা। সরকারী উদ্যোগ্যে প্রশিক্ষণ নিয়ে দক্ষ কর্মী হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারলে সফলতাও আসবে।
সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিকুল আলম বলেন, কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা আরো বাড়ানো গেলে বেশি সংখ্যক লোকজন বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত হতে পারতো। উপজেলা পর্যায়ের পাশাপাশি ইউনিয়ন পর্যায়েও এরকম কর্মশালা আয়োজন করার প্রতিও তিনি গুরুত্বারোপ করেন। সব ধরণের শ্রেণী পেশার লোকজনকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা এবং এর মধ্যে ৩০ ভাগ নারীর অংশ গ্রহণ নিশ্চিত করায় প্রশিক্ষণ গুরুত্বপাবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  জনসেবার মন নিয়ে সবাইকে জনগণের পাশে থেকে এ জেলা তথা দেশের উন্নয়ন করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  বরকল সদরের ১৩টি গ্রামে নতুন বিদ্যুৎ লাইন সংযোগের দাবী

  সকল সম্প্রদায়ের সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রেখে উন্নয়ন করাই হচ্ছে বর্তমান সরকারের লক্ষ্য-বৃষ কেতু চাকমা

  নানিয়ারচরে দূর্বৃত্তদের গুলিতে জেএসএস সংস্কার গ্রুপের শান্ত চাকমা নিহত

  শান্তি রক্ষায় দুস্কৃতিকারীদের প্রতিরোধে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে-মোঃ সৈয়দ রিয়াদ মেহদুর

  দেশের মানুষের জন্য সরকার সকল ধরণে সুযোগ সুবিধা প্রদান করছে

  রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ উদ্বোধন

  চলে গেলেন রাঙ্গামাটির বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক আতিকুর রহমান

  সকল ধর্মের মানুষের কল্যাণে কাজ করা পারাটাই হচ্ছে আত্মতৃপ্তি-দীপংকর তালুকদার

  খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ ও ক্ষুধামুক্ত দেশ গড়তে সবাইকে একযোগে এগিয়ে আসতে হবে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  পার্বত্য অঞ্চলে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিশুদের মাতৃভাষা নিশ্চিত করা হবে-বৃষ কেতু চাকমা

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?