শনিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৭, ০৮:৩৫:৫৭

কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা মামলার রায় ২০ আগস্ট

কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা মামলার রায় ২০ আগস্ট

ডেস্ক রির্পোটঃ-গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে দায়ের করা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামী ২০ আগস্ট।
বৃহস্পতিবার ঢাকার ২নং দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মমতাজ বেগম এ দিন ধার্য করেন।
৬৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ এবং রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য এ দিন ধার্য করা হলো।
মামলার সংক্ষিপ্ত অভিযোগে বলা হয়, ২০০০ সালের ২২ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গোপালগঞ্জে সফর উপলক্ষে কোটালীপাড়া শেখ লুৎফর রহমান সরকারি আদর্শ কলেজ মাঠে জনসভার প্যান্ডেল তৈরির সময় একটি শক্তিশালী বোমা পাওয়া যায়। পরে সেনাবাহিনীর একটি দল ৭৬ কেজি ওজনের একটি শক্তিশালী বোমা উদ্ধার করে। পরদিন ২৩ জুলাই ৪০ কেজি ওজনের আরও একটি বোমা উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় ওইদিনই কোটালীপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নূর হোসেন একটি মামলা দায়ের করেন। ২০০১ সালের ৮ এপ্রিল সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মুন্সি আতিকুর রহমান গোপালগঞ্জ আদালতে মুফতি আব্দুল হান্নানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে ২০১০ সালে মামলাটি ঢাকার ২নং দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়।
মামলার অপর আসামিরা হলেন, মো. মহিবুল্লাহ, মুন্সি ইব্রাহিম, মো. মাহমুদ আজহার, মো. রাশেদ ড্রাইভার, মো. শাহ নেওয়াজ, মো. ইউসুফ, মো. লোকমান, শেখ মো. এনামুল ও মো. মিজানুর রহমান। তবে মুফতি হান্নানের অন্য মামলায় ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় এ মামলা থেকে তাকে বাদ দেয়া হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাস্তায় সন্তান প্রসব: কাঠগড়ায় তিন হাসপাতাল

  খালেদা জিয়ার জামিন, বিদেশ যেতে অনুমতি লাগবে

  মোবাইল অপারেটরগুলোর রাত্রিকালীন বিশেষ প্যাকেজ বন্ধের নির্দেশ

  ব্লু হোয়েল গেম বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

  সোনা চোরাচালানের সময় বিমান কর্মীসহ আটক-২

  ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষয়ে হাইকোর্টের রায় ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত

  জঙ্গি মারজানের বোন খাদিজা আত্মসমর্পণঃ যশোরে জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন মেল্ট ‍এ আইস’ সমাপ্ত

  ভবন ভাঙতে আরও ৭ মাস সময় পেল বিজিএমইএ

  আইনজীবী সমিতির দেশব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা

  ঢাকায় জালিয়াতি চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

  সরিষাবাড়ির ‘নিখোঁজ’ মেয়র শ্রীমঙ্গলে উদ্ধার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ সম্পূর্ণ মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও এখন এটা বাংলাদেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনি কি তার এ বক্তব্যের সঙ্গে একমত?