বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৭, ০৯:০৩:৫৫

নওগাঁয় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

নওগাঁয় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

ঢাকা: নওগাঁয় মাহফিল শুনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী। ঘটনার পর স্থানীয়রা ধর্ষক সোহাগ (২৫) নামে এক যুবককে ধরে পুলিশে দিয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার কীর্ত্তিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী নওগাঁ সদর হাসপাতালে গাইনি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছে। ধর্ষক সোহাগ মাঝিপাড়া গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে।

বুধবার ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাবা শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা করেছেন।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মাহফিল শুনতে কীর্ত্তিপুর স্কুল মাঠে যায়। সেখানে খাওয়ার জিনিস কেনার জন্য পাশের দোকানে গেলে রাব্বী নামে এক ছেলে ডেকে স্কুলের পিছনে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকে অপেক্ষা করা সোহাগ আমাকে ছুরি দিয়ে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে জোর করে জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করে। যাওয়ার সময় কাউকে কোনো কিছু না বলার জন্য বলে যায়। এরপর কাঁদতে কাঁদতে এসে রাস্তার লোকজনকে বিষয়টি জানায় ওই মেয়েটি।

ওই ছাত্রীর বাবা শহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা গরীব মানুষ। আমার এ মেয়েটার কিভাবে এমন ক্ষতি করতে পারল। এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের শাস্তির দাবি করেন তিনি।

নওগাঁ সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। ধর্ষক সোহাগকে স্থানীরা ধরে পুলিশে সোপর্দ করায় বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্ত চলছে। এ ঘটনার সাথে যদি আরো কেউ সম্পৃক্ত থাকে সেক্ষেত্রে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা পরবর্তী শুনানি ২৩ জানুয়ারি

  ডিএনসিসির মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত

  ভ্রাম্যমাণ আদালতঃ আপিলের অনুমতি পেলো সরকার

  সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদ নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত আদেশ, নিষ্পত্তি হবে তৃতীয় বেঞ্চে

  ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলাঃ আসামি পক্ষের অপ্রয়োজনীয় বক্তব্যে আদালত বিরক্ত

  হাই কোর্টে আটকে গেল ফোর জি

  পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ আইন বাতিলে আপিল শুনানি ২৩ জানুয়ারি

  ভ্রাম্যমাণ আদালত বিষয়ে আপিল শুনানি ১৬ জানুয়ারি

  রোহিঙ্গা নারীকে বিয়েঃ রিট খারিজ ও জরিমানা

  ২০ বছর ধরে বিচারাধীন ১৯ জেল আপিল গ্রহণ করেছে হাইকোর্ট

  মেয়র সাক্কুকে আত্মসমর্পণে হাইকোর্টের নির্দেশ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?