বুধবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৮, ০৮:১৪:১৮

রাঙ্গামাটিতে অনুষ্ঠিত হলো পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা

রাঙ্গামাটিতে অনুষ্ঠিত হলো পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা

রাঙ্গামাটিঃ-জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৪ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) বিকালে রাঙ্গামাটি শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঘাট সংলগ্ন কাপ্তাই হ্রদে অনুষ্ঠিত হয় শেখ রাসেল স্মৃতি নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিযোগিতার ৪ টি ইভেন্টে বেশ কয়েকটি দল অংশ গ্রহণ করেন।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।
এ সময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারমন তরুন কান্তি ঘোষ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য অর্থ মোঃ শাহিনুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি রিজিয়নের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ রিয়াদ মেহেমুদ এএফডব্লিউ ইউপি পিএসসি, জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবির, ডিজিএফাই কমান্ডার, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য ও নৌকা বাইচ কমিটির আহবায়ক এবং প্রতিযোগিতা কমিটির আহবায়ক ও জেলা আওয়ামীলীগ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর সহ জেলা ক্রীড়া সংস্থা সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ মামুন, রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিউল আজম, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড এর আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতায় এবং রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় এ প্রতিযোগিতার পুরুষ বড় নৌকা, মহিলা বড় নৌকা, সাম্পান একক একক কায়িক বোর্ট মহিলাদের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
পুরুষ বড় নৌকা প্রতিযোগিতায় প্রথমস্থান অধিকার করেন জুরাছড়ি উপজেলার পলাশ চাকমা ও তার দল, দ্বিতীয় সুশান্ত ও তার দল ও তৃতীয় স্থান যুবরাজ ও তার দল। মহিলা বড় নৌকায় চ্যাম্পিয়ন হয় অর্চনা ত্রিপুরা ও তার দল, দ্বিতীয় স্থান হয় শান্তি ত্রিপুরা ও তার দল, তৃতীয় স্থান অধিকার করে অনিতা চাকমা ও তার দল। সাম্পান প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে কামাল, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে নুরুল ইসলাম, ও তৃতীয় স্থান অধিকার করে দিদার।
এবারের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় নতুন সংযুক্ত হয়েছে কায়াজ প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে পূর্না ও হিলারী, দ্বিতীয় হয়েছে তাপসী এবং তৃতীয় হয়েছে যৌথ ভাবে বিশাখা ও কবিতা এবং জিনা ও পারমি। প্রতিযোগিতায় বড় নৌকায় প্রথম, দ্বিতীয় স্থান অধিকারী দল সমূহকে যথাক্রমে ৫০ হাজার, ৪০ হাজার ও ৩০ হাজার টাকার নগদ পুনস্কার এবং একক ও দ্বৈত ইভেন্টে ১০ হাজার, ৮ হাজার ও ৫ হাজার নগদ পুরস্কার বিতরন করা হয়।
প্রতিযোগিতার পাশাপাশি এদিন কাপ্তাই হ্রদের ভ্রমন পিপাসুদের জন্য পরিবেশ সম্মত, ইঞ্জিন বিহীন সৌর বিদ্যুৎ চালিত এবং হস্ত চালিত ট্যুরিস্ট বোর্ড প্রদর্শিত হয়।
নৌকা বাইচ প্রতযোগিতা উপভোগ করার জন্য প্রতিযোগিতার আশে পাশের বিশাল এলাকা জুড়ে সব বয়েসী লোকজনের ভীড় জমে।

এই বিভাগের আরও খবর

  ব্যারিস্টার মঈনুলের জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে প্রেরণ

  খালেদা জিয়ার আপিলের শুনানি অব্যাহত

  দুই মাসের মধ্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষার মূল্যতালিকা নির্ধারণে নির্দেশ

  ঋণ জালিয়াতির মামলায় চট্টগ্রামের এসএ গ্রুপের মালিক কারাগারে

  হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল

  খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে চ্যারিটেবল মামলা চলবে

  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথম মামলা সিআইডির

  রায় পর্যালোচনা করে তারেকের দণ্ড বিষয়ে আপিল-এটর্নি জেনারেল

  বাবর-পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন

  বিএনপির বিরুদ্ধে ‌‘গায়েবি মামলা’ ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পুলিশের-হাইকোর্ট

  মায়ার ১৩ বছরের সাজা বাতিল

  0

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?