শনিবার, ২০ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০১ অক্টোবর, ২০১৮, ০৩:৫৬:০১

দুই মামলায় খালেদার জামিন বহাল

দুই মামলায় খালেদার জামিন বহাল

ডেস্ক রিপোর্টঃ-ঢাকা ও নড়াইলে মানহানির অভিযোগে করা পৃথক মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত চেয়ে করা রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ করেছেন আপিল বিভাগ। ফলে এ দুই মামলায় খালেদার জামিন বহাল রইলো বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেন।
আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। খালেদার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী।
নড়াইলের মামলায় গত ১৩ আগস্ট এবং ঢাকার মামলায় গত ১৪ আগস্ট খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের জামিন দেন হাইকোর্ট। পরে এ দুই মামলায় হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।
উল্লেখ্য, মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা নিয়ে ২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর বিরুপ মন্তব্য করার অভিযোগে ওই বছরের ২৪ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নড়াইলে মানহানির মামলা করা হয়। স্থানীয় এক  মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রায়হান ফারুকী ইমাম বাদী হয়ে মামলাটি করেন। এ মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন গত ৫ আগস্ট খারিজ করেন নড়াইলের আদালত। এরপর হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করা হলে আদালত গত ১৩ আগস্ট খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের জামিন দেন।
এদিকে, ২০১৬ সালের ৫ জানুয়ারি এবি সিদ্দিকীর করা মামলায় ঢাকা মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালত গত ৭ আগস্ট খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করেন। এরপর খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করা হলে গত ১৪ আগস্ট আদালত তাকে ৬ মাসের জামিন দেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  ঋণ জালিয়াতির মামলায় চট্টগ্রামের এসএ গ্রুপের মালিক কারাগারে

  হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল

  খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে চ্যারিটেবল মামলা চলবে

  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথম মামলা সিআইডির

  রায় পর্যালোচনা করে তারেকের দণ্ড বিষয়ে আপিল-এটর্নি জেনারেল

  বাবর-পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন

  বিএনপির বিরুদ্ধে ‌‘গায়েবি মামলা’ ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পুলিশের-হাইকোর্ট

  মায়ার ১৩ বছরের সাজা বাতিল

  রিভিউ খারিজঃ খালাফ হত্যাঃ মামুনের মৃত্যুদণ্ড বহাল

  খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তির নির্দেশ

  কুমিল্লায় ৮ যাত্রী হত্যা মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?