বুধবার, ২৩ মে ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ১২:১৬:২০

খালেদাকে আরও দুই মামলায় ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ কোর্টে হাজির করা হবে

খালেদাকে আরও দুই মামলায় ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ কোর্টে হাজির করা হবে

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে শাহবাগ ও তেজগাঁও থানার নাশকতার দুই মামলায় আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ ঢাকার সিএমএম কোর্টে হাজির করা হবে বলে জানিয়েছেন আইজি প্রিজন্স।
এর আগে সোমবার কারা-মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন্স) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার উদ্দিন জানান, খালেদা জিয়াকে কুমিল্লা এবং ঢাকার তেজগাঁও ও শাহবাগ থানার তিনটি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সাজা ঘোষণার পর খালেদা জিয়াকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  মানহানির দুই মামলায় হাইকোর্টে খালেদার জামিন আবেদন

  দুই মামলায় খালেদার জামিন আবেদনের শুনানি পিছিয়েছে

  ৩ মামলায় হাইকোর্টে জামিন চেয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন

  খালেদা জিয়ার ৬ মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন আগামী সপ্তাহে

  খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আরো ২ গ্রেফতারি পরোয়ানা

  খালেদা জিয়ার মুক্তিতে অন্যান্য মামলা আর বাধা হবে না-মওদুদ

  আরো ৬ মামলায় জামিন পেলে মিলবে খালেদা জিয়ার কারামুক্তি

  খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে রায় বুধবার

  জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলাঃ খালেদা জিয়ার আপিলের পেপারবুক প্রস্তুত

  জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলাঃ খালেদা জিয়ার জামিন বাড়ল ৪ জুন পর্যন্ত

  খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে আদেশ ১৫ মে

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশের ক্ষমতায় কে আসবে তা এ দেশের জনগণই নির্ধারণ করবে, এ বিষয়ে ভারতের ইন্টারফেয়ার করার কিছু নেই। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?