সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ১২:১৬:২০

খালেদাকে আরও দুই মামলায় ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ কোর্টে হাজির করা হবে

খালেদাকে আরও দুই মামলায় ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ কোর্টে হাজির করা হবে

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে শাহবাগ ও তেজগাঁও থানার নাশকতার দুই মামলায় আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ ঢাকার সিএমএম কোর্টে হাজির করা হবে বলে জানিয়েছেন আইজি প্রিজন্স।
এর আগে সোমবার কারা-মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন্স) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার উদ্দিন জানান, খালেদা জিয়াকে কুমিল্লা এবং ঢাকার তেজগাঁও ও শাহবাগ থানার তিনটি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সাজা ঘোষণার পর খালেদা জিয়াকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  রায়ের অনুলিপি আজও পাচ্ছে না খালেদার আইনজীবীরা

  রায়ের কপি প্রদানে আইনে নির্দিষ্ট সময়ের উল্লেখ নেই

  খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হচ্ছে না রবিবার

  শীর্ষ সন্ত্রাসী শাহাদাতসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড হাইকোর্টে বহাল

  আজ নয়, কাল মিলতে পারে খালেদার রায়ের কপি

  এখনও আপিল করতে পারেননি খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা

  খালেদাকে আরও দুই মামলায় ১৮ ফেব্রুয়ারি ও ৪ মার্চ কোর্টে হাজির করা হবে

  রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় চারজনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

  যুদ্ধাপরাধে এবার ৩১তম রায়ের অপেক্ষা

  পুরনো জেলের অফিস কক্ষ খালেদার নতুন ঠিকানাঃ সঙ্গে থাকবেন গৃহকর্মী ফাতেমা

  নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে খালেদা জিয়া

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার রায়ের মাধ্যমে রাজনৈতিক সংকট ঘনীভূত হবে না বরং বিএনপির অভ্যন্তরীণ সংকট ঘনীভূত হবে।’ আপনি কি তাই মনে করেন?