রবিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৪ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৬:৪৭

মেয়র সাক্কুকে আত্মসমর্পণে হাইকোর্টের নির্দেশ

মেয়র সাক্কুকে আত্মসমর্পণে হাইকোর্টের নির্দেশ

ডেস্ক রিপোর্টঃ-কুমিল্লার সিটি মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা দুর্নীতির মামলায় বিশেষ আদালতের অব্যাহতির আদেশ কেন অবৈধ হবে না- তা জানতে চেয়ে আজ রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেয়।
দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান এ কথা জানান। তিনি বলেন ,এ মামলায় তাকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি বিচারিক আদালতকে সাক্কুকে জামিন দিতে বলা হয়েছে। অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৭ জানুয়ারি সাক্কুর বিরুদ্ধে ঢাকার রমনা থানায় মামলা করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক শাহীন আরা মমতাজ। গত বছরের ১৮ এপ্রিল মামলার অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে সাক্কুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কামরুল হোসেন মোল্লা। এরপর আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন সাক্কু।
পরে গত ২২ নভেম্বর অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের মামলা থেকে কুমিল্লা সিটি মেয়র ও বিএনপি নেতা মনিরুল হক সাক্কুকে অব্যাহতি দেন ঢাকার আট নম্বর বিশেষ জজ আদালত। বিচারক শামীম আহম্মদ এ আদেশ দেন। এরপর উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত সাক্কুকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।
বিচারিক আদালতের সেই আদেশের বিরুদ্ধে দুদকের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে আজ হাইকোর্ট রুল জারিসহ সাক্কুকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  ঋণ জালিয়াতির মামলায় চট্টগ্রামের এসএ গ্রুপের মালিক কারাগারে

  হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল

  খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে চ্যারিটেবল মামলা চলবে

  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথম মামলা সিআইডির

  রায় পর্যালোচনা করে তারেকের দণ্ড বিষয়ে আপিল-এটর্নি জেনারেল

  বাবর-পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, তারেকসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন

  বিএনপির বিরুদ্ধে ‌‘গায়েবি মামলা’ ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পুলিশের-হাইকোর্ট

  মায়ার ১৩ বছরের সাজা বাতিল

  রিভিউ খারিজঃ খালাফ হত্যাঃ মামুনের মৃত্যুদণ্ড বহাল

  খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তির নির্দেশ

  কুমিল্লায় ৮ যাত্রী হত্যা মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?