বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৭:০৪:৫৩

‘জয় বাংলা’ জাতীয় স্লোগান ঘোষণা প্রশ্নে রুল শুনানি ১৮ জানুয়ারি

‘জয় বাংলা’ জাতীয় স্লোগান ঘোষণা প্রশ্নে রুল শুনানি ১৮ জানুয়ারি

ডেস্ক রিপোর্টঃ-‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান ঘোষণা বিষয়ে জারি করা রুলের শুনানির জন্য ১৮ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ রবিবার এ আদেশ দেন।
“জয় বাংলা”কে কেন ‘জাতীয় স্লোগান’ ঘোষণা করার নির্দেশ দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি গত ৪ ডিসেম্বর রুল জারি করে হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন আদালত। বিষয়টি নিয়ে আনা রিট পিটিশনার সুপ্রিমকোর্ট বার-এর সাবেক সেক্রেটারি ও সুপ্রিমকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী ড. বশির আহমেদ বলেন, আদালতে তিনি নিজেই এ বিষয়ে শুনানি করেন। রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব এবং শিক্ষা সচিবকে রেসপনডেন্ট (প্রতিপক্ষ) করা হয়েছে। ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদেরকে এ রুলের জবাব দিতে বলেন আদালত। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।
ড. বশির আহমেদ বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়েই সমস্ত জাতি এক হয়েছিল। এই স্লোগানে উদ্বুদ্ধ হয়েই বীর বাঙ্গালি যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং পাকিস্তানি সামরিক জান্তা ও তাদের এদেশীয় দোসড়দের কবল থেকে দেশকে মুক্ত করে।
ড. বশির বলেন, দীর্ঘ সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে আমাদের কোনো জাতীয় মোটো কিংবা স্লোগান নেই।
সে কারণে জয় বাংলাকে জাতীয় স্লোগান হিসেবে নির্ধারণে প্রয়োজনীয় নির্দেশনার আর্জি জানিয়ে এ রিট পিটিশনটি দায়ের করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা পরবর্তী শুনানি ২৩ জানুয়ারি

  ডিএনসিসির মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত

  ভ্রাম্যমাণ আদালতঃ আপিলের অনুমতি পেলো সরকার

  সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদ নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত আদেশ, নিষ্পত্তি হবে তৃতীয় বেঞ্চে

  ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলাঃ আসামি পক্ষের অপ্রয়োজনীয় বক্তব্যে আদালত বিরক্ত

  হাই কোর্টে আটকে গেল ফোর জি

  পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ আইন বাতিলে আপিল শুনানি ২৩ জানুয়ারি

  ভ্রাম্যমাণ আদালত বিষয়ে আপিল শুনানি ১৬ জানুয়ারি

  রোহিঙ্গা নারীকে বিয়েঃ রিট খারিজ ও জরিমানা

  ২০ বছর ধরে বিচারাধীন ১৯ জেল আপিল গ্রহণ করেছে হাইকোর্ট

  মেয়র সাক্কুকে আত্মসমর্পণে হাইকোর্টের নির্দেশ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?