বুধবার, ২২ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৭, ০৮:০১:৫৩

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষয়ে হাইকোর্টের রায় ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষয়ে হাইকোর্টের রায় ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত

ডেস্ক রিপোর্টঃ-নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা অবৈধ ও অসাংবিধানিক ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায় ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।
রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ আপিল বেঞ্চ আজ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন।
এর আগেও কয়েক দফা এই রায় স্থগিত ঘোষণা করেছিলেন আপিল বিভাগ।
২০১১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর ভবন নির্মাণ আইনের কয়েকটি ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগে আবাসন কোম্পানি এসথেটিক প্রপার্টিজ ডেভেলপমেন্টের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান খানকে ভ্রাম্যমাণ আদালত ৩০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন। ২০ সেপ্টেম্বর তিনি জামিনে মুক্তি পান। এরপর তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন (মোবাইল কোর্ট অ্যাক্ট, ২০০৯) এর কয়েকটি ধারা ও উপধারার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ১১ অক্টোবর রিট আবেদন করেন।
রিটের শুনানি নিয়ে একই বছর রুল জারি করেন হাইকোর্ট। আদালতের জারি করা রুলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার ৫ ধারা এবং ৬(১), ৬(২), ৬(৪), ৭, ৮(১), ৯, ১০, ১১, ১৩, ১৫ ধারা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। পরে এ ধরনের আরও দু’টি রিট করা হয়। তিন রিটে মোট ১৯ আবেদনকারীর শুনানি শেষে গত ১১ মে রায় ঘোষণা করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  কোটা আন্দোলনকারী রাশেদসহ ২০ শিক্ষার্থীর জামিন

  কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান পোড়ানোর মামলাঃ খালেদা জিয়ার মামলার পরবর্তী শুনানি ৩০ আগস্ট

  ছাত্র আন্দোলনঃ জামিন পেলেন ১৬ শিক্ষার্থী

  যুদ্ধাপরাধে হবিগঞ্জের দুই জনের রায় যে কোনো দিন

  রাইফার মৃত্যুঃ চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নয়-হাইকোর্ট

  ঢাকার মানহানির এক মামলায় খালেদার ৬ মাসের জামিন

  মানহানির মামলায় খালেদার ৬ মাসের জামিন

  রবিবার শুনানি ও আদেশের জন্য খালেদার ৪ মামলা সুপ্রিম কোর্টে

  অভিনেত্রী নওশাবা ফের ২ দিনের রিমান্ডে

  রিমান্ড শেষে কারাগারে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২ ছাত্র

  খালেদা জিয়ার জামিন ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়লো

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?